পটিয়া উপজেলা দেশরত্ন পরিষদ কর্তৃক শেখ হাসিনার কারাবরণ দিবস পালন

বিশেষ প্রতিনিধিঃ এম আর তাওহীদ
  • Update Time : শনিবার, ১৭ জুলাই, ২০২১
  • ৭০ Time View

পটিয়া উপজেলা দেশরত্ন পরিষদের উদ্যোগে ১৬ জুলাই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার কারাবরণ দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল হাবিলাসদ্বীপ ইউনিয়নের পাচুঁরিয়ায় অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট শিশু সংগঠক ও কেন্দ্রীয় দেশরত্ন পরিষদের সভাপতি মোহাম্মদ সাহাব উদ্দিন।

প্রধান বক্তা ছিলেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা দেশরত্ন পরিষদের সভাপতি, বিশিষ্ট সমাজসেবক ও দানবীর আলহাজ্ব শাহজাহান চৌধুরী।

সভাপতিত্ব করেন পটিয়া উপজেলা দেশরত্ন পরিষদের সভাপতি এস এম দিদারুল হক জসিম ও অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন পটিয়া উপজেলা দেশরত্ন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আজিজুল হক মানিক।

আরো বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা যুবলীগ নেতা সিদ্ধার্ত বড়ুয়া, পটিয়া উপজেলা দেশরত্ন পরিষদের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক উজ্জ্বল ঘোষ, পটিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম জুয়েল, পটিয়া উপজেলা দেশরত্ন পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম রাসেল, পটিয়া উপজেলা যুবলীগ নেতা আবদুর শুক্কুর, হাবিলাসদ্বীপ ইউনিয়ন দেশরত্ন পরিষদের সাবেক সভাপতি দূর্জয় বড়ুয়া নয়ন, সাবেক সহ-সভাপতি সংকু নাথ, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক নয়ন নাথ, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সুপক নাথ, প্রচার সম্পাদক ইতান বড়ুয়া প্রমূখ।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, ২০০৭ সালের ১৬ জুলাই তৎকালীন সেনা সমর্থিত সরকার বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভাপতি দেশরত্ন শেখ হাসিনাকে মিথ্যা মামলায় গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠান। শেখ হাসিনা গ্রেফতার হওয়ার পর বর্তমানের অনেক এমপি, মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের অনেক কেন্দ্রীয় নেতা দেশ ছেড়ে পালিয়ে যান। পটিয়ার কৃতি সন্তান, বর্তমান বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ বদিউল আলম তখন জীবনের ঝুঁকি নিয়ে শেখ হাসিনার মুক্তি আন্দোলনে আশিক ছদ্মনামে প্রথম পোষ্টার ও লিফলেট বের করেন এবং তা সারা দেশে আলোড়ন সৃষ্টি করে। সে পোষ্টার ও লিফলেট গুলো প্রতিটি জেলায় জেলায় দলীয় নেতা-কর্মীদের নিকট বিলি করেন। ওই পোষ্টার-লিফলেটে শিরোনাম ছিলো
“জুলুম, নির্যাতন, অন্যায়, অভিবেকী আচরণ বন্ধ কর, অবিলম্বে দেশরত্ন শেখ হাসিনা’র মুক্তি চাই”
দীর্ঘ ১১ মাস দলীয় নেতা-কর্মীদের আন্দোলনে পর তৎকালীন সেনা সমর্থিত সরকার শেখ হাসিনাকে মুক্তি দিতে বাধ্য হয়।

আলোচনা সভা শেষে উপস্থিত দেশরত্ন পরিষদের নেতৃবৃন্দরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি দেশরত্ন শেখ হাসিনা ও দেশরত্ন পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ বদিউল আলম এর দীর্ঘায়ু ও সু-স্বাস্থ্য কামনা করে দোয়া করেন।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category