গণজাগরণকে গণ-অভ্যুত্থানে রূপান্তরিত করে জনগণের আকাঙ্খা বাস্তবায়নে দ্বিতীয় মুক্তিযুদ্ধে ঝাপিয়ে পরতে হবে। ———শহীদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপন

বিশেষ প্রতিনিধিঃ মোঃ টিপু সুলতান
  • Update Time : শুক্রবার, ২৫ আগস্ট, ২০২৩
  • ২৮৯ Time View

আজ বিকাল ৪টায় কুমিল্লা টাউন হল মিলনায়তনে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জেএসডি কুমিল্লা জেলা ও মহানগর শাখা কর্তৃক আয়োজিত ‘সিরাজুল আলম খান এবং আগামীর বাংলাদেশ’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক শহীদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপন বলেন, সিরাজুল আলম খান আমাদের স্বাধীনতার স্বপ্নদ্রষ্টা ও মুক্তি সংগ্রামের নেপথ্য নায়ক। তিনি ছিলেন দূরদৃষ্টি সম্পন্ন, দেশপ্রেমিক, স্বাধীনতা আন্তপ্রাণ ও ঘটনাবহুল রাজনৈতিক কর্মময় জীবনের অধিকারী। সিরাজুল আলম খান ৬২ তে স্বাধীন বাংলাদেশের সৃষ্টির লক্ষ্যে গোপন সংগঠন নিউক্লিয়াস গঠন করেন এবং ছয় দফা ও এগারো দফার আন্দোলন কে অসহযোগ আন্দোলনে নেওয়ার রণকৌশল প্রণয়ণ করে ৭১ এর পটভূমি তৈরি করেন। তাঁর নির্দেশনায় পতাকা তৈরি, উত্তোলন ও ইস্তেহার পাঠ স্বায়ত্তশাসনের আন্দোলন কে স্বাধীনতার জন্য সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধে ধাবিত করে। তিনি আরও বলেন, সিরাজুল আলম খান স্বাধীনতাকে যেভাবে অনিবার্য পরিণতি দিয়েছিলেন, তেমনি স্বাধীনতার পরবর্তীতে দেশ গঠনেও সুনির্দিষ্ট রাজনৈতিক প্রস্তাবনা দিয়েছিলেন। কিন্তু তাঁর প্রস্তাবনা উপেক্ষা করে ঔপনিবেশিক আইন কানুন বহাল রেখেই শাসন ব্যবস্থা প্রণয়ন করে। স্বাধীন দেশের সূচনালগ্নে একটি ত্রুটিযুক্ত শাসন ব্যবস্থা বাংলাদেশকে বারবার দুঃশাসনে পর্যবসিত করেছে। তারই ধারাবাহিকতায় আজ দেশে একটি কর্তৃত্ববাদী ফ্যাসিবাদী শাসকের দুঃশাসন চলছে। দেশের সকল সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে, নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম আকাশচুম্বি, মতপ্রকাশের স্বাধীনতা নেই, ন্যায়বিচার নেই। ভূ-রাজনীতিতে দেশ আজ চরম ঝুঁকিতে পরেছে। এ ফ্যাসিবাদী কার্যক্রমের কারণে আজ গভীর সংকট চলছে, আরেকটি ভোট বিহীন নির্বাচনের পায়তারা চলছে। কিন্তু জনগণ আর কর্তৃত্ববাদী সরকাররে অধীনে থাকতে চায় না, জনগণ আজ রাজপথে। ফ্যাসিস্ট সরকারের পতন, রাষ্ট্রীয় ব্যবস্থাপনার আমূল সংস্কারের আন্দোলন আজ গণজাগরণে পরিণত হয়েছে। এ গণজাগরণকে গণ-অভ্যুত্থানে রূপান্তরিত করে জনগণের আকাঙ্খা বাস্তবায়নে দ্বিতীয় মুক্তিযুদ্ধে ঝাপিয়ে পরতে হবে। সভায় আরও বক্তব্য রাখেন জেএসডি কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. সৈয়দ বেলায়েত হোসেন বেলাল, এ্যাড. বিকাশ চন্দ্র সাহা, সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ারুল কবির মানিক, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের(জেএসডি) সভাপতি তৌফিক উজ জামান পীরাচা, নারী নেত্রী শিরিন আক্তার, কুমিল্লা গণসংহতি আন্দোলনের সদস্য সচিব হাবিবুর রহমান, সিরাজুল ইসলাম বি এ। সভার সভাপতিত্ব করেন, মিজানুর রহমান এবং সঞ্চালনা করেন শ্রমিক নেতা আবদুস সোবহান।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

আলহামদুলিল্লাহ অত্যন্ত ভালো একটি কাজে থাকতে পেরে খুবই ভালো লাগছে ০৫/০৪/২০২৪ শুক্রবার বিকাল ৩ ঘটিকায় কাতার চ্যারিটির পক্ষ থেকে ৫০০ পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী প্রদান উপহার প্রদান করেন ৬৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জনাব আব্দুল মতিন সাউদ ভাই ও ফুলকুড়ি ইউনিট আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হোসেন ভাই ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ সকলেই ছিলেন পাশাপাশি সার্বিক সহযোগিতায়‌ ছিলেন এলাকার সকল ছোট ভাইয়েরা। এবং এই ঈদ সামগ্রীর আয়োজক ছিলেন আমজাদ হোসেন বাবলু ভাই এডমিন কাতার চ্যারিটি

পাঁচ শতাধিক পরিবার কে ঈদ উপহার দিলো কাতার চ্যারিটি