২১শে আগষ্ট গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে আলোচনা সভা ও ৫০০ পরিবারের মাঝে ত্রান সামগ্রী বিতরণ করেন বদিউল আলম

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ এম আর তাওহীদ
  • Update Time : শুক্রবার, ২০ আগস্ট, ২০২১
  • ৭১ Time View

২১আগষ্ট এর গ্রেনেড হামলায় নিহত শহীদের স্মরনে ও করোনার আপদকালীন সময়ে অসহায় মানুষের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ উপলক্ষে পটিয়া উপজেলার কেলিশহর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের উদ্যোগে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়, কেলিশহর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি সিদ্দিক আহম্মদ এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভার উদ্বোধন করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব ইসহাক, প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অবিভক্ত বৃহত্তর পটিয়া থানা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা চৌধুরী মাহবুবর রহমান,, প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মাদ বদিউল আলম, আলোচনা সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্যে কেন্দ্রীয় যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মাদ বদিউল আলম ২১শে আগষ্ট গ্রেনেড হামলায় নিহত শহীদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বলেন ইতিহাসের বর্বর সরকার ব্যবস্থা ছিল খালেদা নিজামির বিএনপি জামাত জোট সরকার, তারা বাংলাদেশ থেকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা মুচে ফেলতে অনেক ষড়যন্ত্র করেছিল, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগকে নেতৃত্ব শূন্য করতে ২১শে আগষ্টের গ্রেনেড হামলার মতো ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটিয়েছিল, সেদিন মহান আল্লাহর কৃপায় জননেত্রী শেখ হাসিনা প্রানে বেচেঁ গেলে ও নারী নেত্রী আইভি রহমান, ঢাকার প্রথম নির্বাচিত মেয়র- মেয়র হানিফ ভাই সহ অনেক নেতাকর্মীরা শহীদ হয়েছিলেন, ঢাকার রাজপথ আওয়ামীলীগ এর নেতাকর্মীদের রক্তে লাল হয়েছিল, ২১আগষ্ট গ্রেনেড হামলার অন্যতম মাষ্টারমাইন্ড খুনি তারেক জিয়া, পলাতক এই কুলাঙ্গারকে দেশে ফিরিয়ে এনে দ্রুত বিচারের রায় কার্যকর করার দাবী জানাই, পটিয়ায় হুইপ শামশুল হকের অপরাজনীতির বিষয় উল্লেখ করে বদিউল আলম আরো বলেন নেতাকর্মীদের ত্যাগ সংগ্রামের ফসল বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ অথচ আওয়ামীলীগ এর নৌকায় ছড়ে এমপি হুইপ হয়ে ওনি পটিয়াতে আওয়ামীলীগ ধ্বংসের অপরাজনীতি শুরু করেছেন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এর কেন্দ্রীয় নির্দেশনা উপেক্ষা করে তিনি সম্মেলন বিহীন পকেট কমিটি দিয়ে আওয়ামীলীগ এর সাংগঠনিক কাঠামো ধ্বংস করছেন, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের
লাঞ্ছিত করে,নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে, অনুপ্রবেশকারী মাদক কারবারি সন্ত্রাসী ভূমিদস্যুদের দিয়ে রাজনীতি নিয়ন্ত্রণের মতো অপরাধ প্রবণতা দেখাচ্ছেন, বিভিন্ন সময়ে সরকারি সিদ্ধান্ত অমান্যের মতো উদ্ধতপূর্ন আচরণ করেছেন,ক্যাসিনো জুয়ার পক্ষে দাড়িয়েছিল সরকারকে বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন করে, হুইপ শামশুল হকের এই অপকর্ম অপরাজনীতির বিরুদ্ধের আজ পটিয়ার আওয়ামীলীগ ঐক্যবদ্ধ হয়েছে, আমরা আওয়ামীলীগ এর সুনাম মর্যাদা নষ্ট হতে আর দিব না, যারাই আওয়ামীলীগ এর নাম ব্যাবহার করে অপকর্ম করবে তাদের প্রতিহত করা হবে, ইনশাআল্লাহ আমি পটিয়ার আওয়ামীলীগ যুবলীগ ছাত্রলীগ সহ সংগঠনের নেতাকর্মীদের পাশে ছিলাম আছি থাকবো।
আলোচনা সভা শেষে কেলিশহর ইউনিয়নের ৫০০পরিবারের মাঝে উপহার সামগ্রী হিসেবে শাড়ি লুঙ্গী বিতরণ করা হয়,
পটিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগ এর ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক – মোঃ ইউনুছ মেম্বার এর সঞ্চালনায়
অনুষ্ঠানে বিশেষ অথিতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ৭৫’ পরবর্তী পটিয়া থানা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি হুমায়ুন কবির রাশেদ, পটিয়া উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি মোঃ আলমগীর, পটিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নাছির উদ্দিন, সাবেক কমিশনার হাসান মুরাদ, কেলিশহর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক সামশুল আলম, সাবেক ছাত্রনেতা ও শিশু সংগঠক মোঃ সাহাব উদ্দিন, পটিয়া উপজেলা যুবলীগের সাবেক যুগ্ম-আহবায়ক ডি এম জমির উদ্দিন, পটিয়া পৌরসভা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সোহেল ইমরান, পটিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা আলহাজ্ব শাহজাহান চৌধুরী, পটিয়া উপজেলা কৃষক লীগের সাধারন সম্পাদক আবু ছৈয়দ।

আরো বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ নেতা সাইফুল ইসলাম, যুবলীগ নেতা সুজন বড়ুয়া, সাইফুল ইসলাম শাহীন, আজিজুল হক মানিক, তৌহিদুল আলম জুয়েল, সাহাবুদ্দীন সাদি, সাইফুল ইসলাম জুয়েল, বাদশা মিয়া প্রমূখ।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category