পটিয়ায় দুইটি সড়ক নির্মাণে অনিয়ম, অসন্তোষ হুইপ শামসুল হক চৌধুরী এমপি,

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই, ২০২০
  • ৮০০ Time View

পটিয়ায় দুইটি সড়ক নির্মাণে অনিয়ম, অসন্তোষ হুইপ শামসুল হক চৌধুরী এমপি,

এস টি মানিক পটিয়া প্রতিনিধি:-

পটিয়ায় সড়ক ও জনপথ বিভাগ (সওজ) এর প্রায় শত কোটি টাকার কাজ নিম্নমানের করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।পটিয়া উপজেলার ধলঘাট ইউনিয়নের পটিয়া-বোয়ালখালী-কানুনগোপাড়া সড়ক ১২ কে.মি. এবং উপজেলার পটিয়া-আনোয়ারা-মুরালী সড়ক ১৪ কি.মি. কাজ ইতোমধ্যে ৭০ শতাংশ শেষ হয়েছে। ঠিকাদার তড়িগড়ি করে দুই রাস্তার কাজ নিম্নমানের প্যালাসাইডিং করেছে। যার কারণে রাস্তার বিভিন্ন পয়েন্টে ভেঙে যাচ্ছে। (১২ জুলাই) রবিবার দুপুরে জাতীয় সংসদের হুইপ ও চট্টগ্রাম-১২ (পটিয়া) আসনের সংসদ সদস্য সামশুল হক চৌধুরী সড়ক সরেজমিনে পরিদর্শনে গিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন পটিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফারহানা জাহান উপমা, সড়ক ও জনপথ বিভাগের পটিয়া উপ বিভাগীয় প্রকৌশলী মোঃ শাখাওয়াত হোসেন, আবু বশর, শফিকুল ইসলাম বাবুল, স্বপন মিত্র, সাগর দে, নেতা মো. বেলাল উদ্দিন, ওসমান আলমদার, মুজিবুর হক চৌধুরী নবাব, জহির আহমদ, যুবলীগ নেতা এনামূল হক মজুমদার, ছাত্রলীগ নেতা আবু তৈয়ব সোহেল, নাজমুল সাকের সিদ্দিকী, মো. শাকিল প্রমুখ।

হুইপ সামশুল হক চৌধুরী এমপি অন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, বর্তমান সরকার পটিয়াসহ সারা দেশে কোটি কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ করে যাচ্ছে। কিন্তু কিছু কিছু ঠিকাদারের কারণে নিম্নমানের কাজ করার কারণে টেকসই উন্নয়ন হচ্ছে না। পটিয়াতে সওজের দুটি রাস্তায় নিম্নমানের কাজ হয়েছে। কয়েকটি পয়েন্টে রাস্তা ধ্বসে পড়েছে। ভেঙে যাওয়া রাস্তা টেকসই উন্নয়নের জন্য ব্যবস্থা নিতে সওজ কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সওজের দোহাজারী নির্বাহী প্রকৌশলী সুমন সিংহ বলেন, দুটি রাস্তায় সম্প্রতি বৃষ্টির কারণে দুই পাশে মাটি ধসে ভেঙে গেছে। ভেঙে যাওয়া রাস্তায় শীঘ্রই প্রয়োজনীয় প্যালাসাইডিং ও রিটানিং ওয়াল নির্মাণ করা হবে। হুইপ সামশুল হক চৌধুরী স্যার ইতোমধ্যে একটি ডিও লেটারও দিয়েছেন বলে জানান।এছাড়াও পটিয়া- মুরালী সড়ক নির্মাণ কাজে চরম অনিয়ম দুর্নীতির অভিযোগ তুলেছেন স্থানীয়রা। সরেজমিনে দেখা যায় রাস্তার দুই পাশে তিন নম্বর ইট দেওয়া হচ্ছে। তাছাড়াও অনেক জায়গায় খানাখন্দ রয়েছে। পুকুরের রিটানিং

ওয়ালে নিম্নমানের ইটের ব্যাবহার ফলে কিছু কিছু এলাকায় এখন থেকে ভাঙ্গন শুরু হয়েছে। এলাকায় লোকজনের দাবি তরিৎ কাজ বুজিয়ে দিয়ে সরকার বিল নেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট টিকাদারী প্রতিষ্টান উটে পড়ে লেগেছে। বিষয়টি তারা জাতীয় সংসদের হুইপ শামসুল হক চৌধুরী সুদৃষ্টি কামনা করেন।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category